রক্তদান সর্ম্পকে কছিু কথা

সমস্ত প্রশংসা বশ্বিজগতরে প্রতপিালক আল্লাহ তায়ালার জন্য। যনিি আমাদরেকে আশরাফুল মাখলুকাত (সৃষ্টরি সরো জীব) হসিবেে সৃষ্টি করছেনে। দরুদ ও সালাম বশ্বিনবী মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামরে প্রত।ি যনিি আমাদরেকে অসুস্থ ব্যক্তরি সবো-যন্তরে প্রতি উৎসাহতি করছেনে। জনসবোমূলক রক্তদানরে এই মহৎ উদ্যোগরে কারণে আমি আমার ছোট ভাই মোঃ ওয়াহদি সাদকে রনকিে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছ।ি হাদীস শরীফ র্পযালোচনা করলে জানা যায়, রোগীর সবো করা অত্যন্ত সাওয়াবরে একটি কাজ। রোগীর সবো বভিন্নিভাবে হতে পার।ে যমেন : রোগীকে দখেতে যাওয়া, তাকে খাওয়ানো, তার চকিৎিসার ব্যবস্থা করা, ওষুধপত্ররে ব্যবস্থা করা এবং প্রয়োজনে তাকে রক্ত দয়োও সবোর মধ্যে গণ্য।
কুরআন ও হাদীসরে আলোকে রক্তদানরে ইসলামী বধিান, রক্তদানরে উপকারতিা প্রভৃতি বষিয়ে সম্মানতি পাঠকবৃন্দরে খদেমতে পশে করছ।ি
আলকুরআনরে আলোকে রক্তদান :
পবত্রি কুরআনে আল্লাহ তায়ালা এরশাদ করনে, ‘‘যে কোন একজন ব্যক্তরি জীবন রক্ষা করলো যে যনে সমগ্র মানবজাতকিে রক্ষা করলো।” (সুরা মায়দো, আয়াত নং ৩২)
উল্লখেতি আয়াতরে আলোকে বশিষেজ্ঞ আলমেগণ রক্তদানকে বধৈ সাব্যস্ত ও অত্যন্ত পূণ্য কাজ হসিবেে সাব্যস্ত করছেনে।
আলহাদীসরে আলোকে রক্তদান :
রক্ত মানবদহেরে এমন একটি গুরুত্বর্পূণ উপাদান, যা কোন কারখানায় উৎপাদন হয় না। যার অভাবে অনকে রোগীর মৃত্যু র্পযন্ত ঘট।ে হাদীস শরীফে সরাসরি রক্তদান সর্ম্পকে কোন র্বণনা পাওয়া যায় না। তবে রোগীর সবো সর্ম্পকে অনকে হাদীস র্বণতি হয়ছে।ে এক হাদীসে রোগীর সবো করাকে মুসলমানরে অন্যতম হক হসিবেে উল্লখে করা হয়ছে।ে রক্তদানরে মাধ্যমে রোগীর প্রাণ রক্ষা করা যে একটি মহৎ সবো তাতে কোন সন্দহে নইে। হযরত আবু হুরায়রা রা. থকেে র্বণতি, তনিি বলনে, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলছেনে, এক যনিাকারণিীকে ক্ষমা করে দয়ো হয়ছে।ে সে একটি কুকুররে নকিট যতেে দখেল, কুকুরটি এক কুপরে পাড়ে দাঁড়য়িে আছে এবং তৃর্ষ্ণাত অবস্থায় হাঁপাচ্ছ।ে এ অবস্থা দখেে সে স্বীয় মোজা খুলল এবং নজিরে ওড়নার সাথে বধেে কুকুরটরি জন্য কুপ থকেে পানি উত্তোলন করল। এজন্য তাকে ক্ষমা করে দয়ো হয়ছে।ে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে জজ্ঞিাসা করা হয়ছেলি য,ে পশুর সবোয়ও কি আমাদরে জন্য সাওয়াব আছ?ে তখন তনিি বললনে, প্রতটিি তাজা হৃদপণ্ডি বশিষ্টি প্রাণী সবোয় সাওয়াব আছ।ে (সহীহ বুখারী ও মুসলমি)
উল্লখেতি হাদীস থকেে আমরা জানতে পারলাম, কুকুর একটি নাপাক প্রাণী হওয়া সত্ত্বওে তার প্রাণ রর্ক্ষাথে একজন যনিাকারণিী পানরি ব্যবস্থা করায় আল্লাহ তায়ালা সইে যনিাকারণিীকে ক্ষমা করে দয়িছেনে। কুকুকরে চয়েে মানুষরে র্মযাদা অনকে বশে।ি কারণ মানুষ আশরাফুল মাখলুকাত বা সৃষ্টরি সরো জীব। তাই কউে যদি রক্তদানরে মাধ্যমে কোন রোগীর প্রাণ রক্ষা করতে পার,ে তাকওে আল্লাহ তায়ালা রক্তদানরে মত মহৎ সবোর কারণে হাদীসে উল্লখেতি যনিাকারণিীর চয়েে অনকে বশেি প্রতদিান দতিে পারনে।
রক্তদানরে বধি-িবধিান :
রক্তদান সর্ম্পকতি ইসলামী শরীয়তরে বভিন্নি বধি-িবধিান নম্নিরূপ-
ক্স যখন কোন অভজ্ঞি চকিৎিসকরে পরার্মশ মতে অন্যরে রক্ত ছাড়া রোগীর জীবন-মরণ সংকট সৃষ্টি হয়, সে ক্ষত্রেে তাকে রক্তদান করা বধৈ।
ক্স রক্ত বক্রিয় করা কোন অবস্থায় বধৈ নয়।
ক্স রোগীর সংকটাপন্ন পরস্থিতিতিে র্অথ ছাড়া রক্ত পাওয়া না গলেে র্অথরে বনিমিয়ওে রক্ত সংগ্রহ করা বধৈ।
ক্স স্বামী-স্ত্রী পরস্পর রক্ত বনিমিয় করলওে ববিাহরে মধ্যে কোনরূপ ত্রুটি বা ক্ষতি সাধতি হয় না।
ক্স রক্তদানরে ক্ষত্রেে মুসলমি-অমুসলমিরেও কোন র্পাথক্য নইে।
রক্তদানরে উপকারতিা :
ইন্টারনটে ভত্তিকি মুক্ত বশ্বিকোষ উইকপিডিয়িার তথ্যানুসারে রক্তদানরে উপকারতিা নম্নিরূপ :
১. রক্তদানে প্রথম ও প্রধান কারণ হলো একজনরে দানকৃত রক্ত আরকেজন মানুষরে জীবন বাঁচাব।ে
২. রক্তদান স্বাস্থরে জন্য অত্যন্ত উপকারী। রক্তদান করার সঙ্গে সঙ্গে শরীররে মধ্যে অবস্থতি ‘বোন ম্যারো’ নতুন কণকিা তরৈরি জন্য উদ্দীপ্ত হয় এবং রক্তদানরে ২ সপ্তাহরে মধ্যে নতুন রক্তকণকিার জন্ম হয়ে ঘাটতি পূরণ হয়ে যায়। বছরে ৩ বার রক্তদান আপনার শরীরে লোহতি কণকিাগুলোর প্রাণবন্ততা বাড়য়িে তোলার সাথে সাথে নতুন কণকিা তরৈরি হার বাড়য়িে দয়ে। উল্লখ্যে রক্তদান করার মাত্র ৪৮ ঘন্টার মধ্যইে দহেে রক্তরে পরমিাণ স্বাভাবকি হয়ে যায়।
৩. নয়িমতি রক্তদান করলে হৃদরোগ ও র্হাট অ্যাটাকরে ঝুঁকি অনকেটাই কমে যায়।
৪. আরকে গবষেণায় দখো যায়, যারা বছরে দুই বার রক্ত দান কর,ে অন্যদরে তুলনায় তাদরে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কম থাক।ে বশিষে করে ফুসফুস, লভিার, কোলন, পাকস্থলী ও গলার ক্যান্সাররে ঝুঁকি নয়িমতি রক্তদাতাদরে ক্ষত্রেে অনকে কম পরলিক্ষতি হয়ছে।ে চার বছর ধরে ১২০০ লোকরে উপর এ গবষেণা চালানো হয়ছেলিো।
৫. নয়িমতি স্বচ্ছোয় রক্তদানরে মাধ্যমে নজিরে শরীরে বড় ধরণরে কোন রোগ আছে কনিা তা বনিা খরচে জানা যায়। যমেন: হপোটাইটসি ব,ি হপোটাইটসি স,ি সফিলিসি, এইচআইভি (এইডস) ইত্যাদ।ি
৬. প্রতি পাইন্ট (এক গ্যালনরে আট ভাগরে এক ভাগ) রক্ত দলিে ৬৫০ ক্যালরি করে শক্তি খরচ হয়। র্অথাৎ ওজন কমানাের ক্ষত্রেওে এটি গুরুত্বর্পূণ ভূমকিা রাখতে পার।ে
৭. রক্তদান র্ধমীয় দকি থকেে অত্যন্ত পূণ্যরে বা সাওয়াবরে কাজ। একজন মানুষরে জীবন বাঁচানোর মতো মহান কাজ। পবত্রি কুরআনরে সুরা মায়দোর ৩২ নং আয়াতে বলা হয়ছে,ে ‘একজন মানুষরে জীবন বাঁচানো সমগ্র মানব জাতরি জীবন বাঁচানোর মতো মহান কাজ”।
পরশিষেে বলা যায় য,ে রক্তদান মানবসবোর অন্যতম একট।ি রক্তদান একজন মানুষরে জীবন বাঁচাতে পার।ে রক্তদানরে মাধ্যমে মানবসবোয় এগয়িে আসা আমাদরে সকলরে উচতি।

মাওলানা মোঃ সাইদ সাদকে
প্রভাষক (আরবী)
রাজারহাট ফাজলি মাদরাসা,
রাজারহাট, কুড়গ্রিাম।

Back To Top